মন্ত্রী-এমপিরা জনগণের দুয়ারে পৌঁছাতে পারেননি

নিজস্ব প্রতিবেদক: ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মন্ত্রী-এমপিরা জনগণের দুয়ারে পৌঁছাতে পারেননি বলে জানিয়েছেন দলটির সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য সতীশ চন্দ্র রায়। শনিবার ঢাকায় ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশনে বঙ্গবন্ধুর একাডেমির ওই আলোচনা সভায় দলের নেতাদের এভাবে সমালোচনা করেন তিনি। সাবেক প্রতিমন্ত্রী সতীশ চন্দ্র রায় বলেন, ‘আমাদের দলের মন্ত্রী-এমপি যারা আছেন। জনগণের দুয়ারে তারা পৌঁছাতে পারেননি। দলের কর্মীদের থেকে তারা দূরে চলে গেছেন।’ তিনি বলেন, ‘আমরা সরকারে এবং দলে অনেকেই আছি, যারা সংগঠনকে (আওয়ামী লীগ) মজুত করি না, সংগঠনকে ব্যবহার করি। শেখ হাসিনা একা কাজ করে যাচ্ছেন। উনার পক্ষে একা সম্ভব না। আমাদের সম্মিলিতভাবে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে।’ বর্তমান রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে আওয়ামী লীগের অবস্থান ব্যাখ্যা করে দলের সভাপতিমণ্ডলীর এই সদস্য বলেন, ‘আমরা খুব সুখে আছি বলা যাবে না, বলা যায় মধ্যম পর্যায়ে আছি। দেশের কোনো সমস্যা হলে, এমনকি প্রতিপক্ষ দলের লোকজনকে মোকাবেলা করার জন্য বা সামনে এগিয়ে গিয়ে প্রতিবাদ করার মতো ক্ষমতা নেই। মাঠ পর্যায়ে যারা আছেন, তারা আওয়ামী লীগকে সমর্থন করেন ঠিক আছে, কিন্তু প্রতিবাদ করার ক্ষমতা তাদের নেই।’ ইউপি নির্বাচন নিয়ে অভ্যন্তরীণ কোন্দলের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘গণতন্ত্রকে সুদৃঢ় করার জন্য ইউপি নির্বাচন দলীয়ভাবে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু আমাদের নেতা-কর্মীরা এ কী শুরু করেছে!’  সেসময় মন্ত্রী-এমপি ও দলীয় নেতাদের পরামর্শ দিয়ে সতীশ রায় বলেন, ‘আমি অনুরোধ করব। মাঠ পর্যায়ে গিয়ে কর্মীদের সাথে দেখা করে সংগঠনকে সুসংগঠিত করুন।’ দিনাজপুরের এই সংসদ সদস্য শেখ হাসিনার আগের সরকারে মৎস্য ও পশুসম্পদ প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্বে ছিলেন কিন্তু এবার মন্ত্রিসভায় স্থান পাননি।