সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় ঝিনাইদহের একই পরিবারের ২ জন নিহত

এইচ.এম ইমরান, ঝিনাইদহ থেকে : সৌদি আরবে মার্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় ঝিনাইদহের একই পরিবারের দুই জন নিহত ও দুই জন মারাত্মক আহত হয়েছেন। নিহতরা হলেন, ঝিনাইদহ শহরের হামদহ শেখপাড়ার সাইফুল ইসলামের স্ত্রী শিউলী বেগম (৩৭) ও তার ছেলে ঝিনাইদহ আলহেরা স্কুলের ৬ষ্ঠ শ্রেনীর ছাত্র ওমর আল সাইম (১১)। দুর্ঘটনায় সাইফুল ইসলাম (৪৫) ও তার মেয়ে আলহেরা স্কুলের নবম শ্রেনীর ছাত্রী শাম্মি আক্তার (১৪) আহত মারাত্মক আহত হয়ে কোমায় রয়েছেন। শনিবার দুপুরে সৌদি আরবের মক্কা শরীফ থেকে রিয়াদে আসার পথে এই দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতের খবর ঝিনাইদহের হামদহ এলাকার শেখপাড়ায় পৌছালে সাইফুলের পরিবারে শোকের ছায়া নেমে আসে। সাইফুলের ভাতিজা হামদহ শেখ পাড়ার রিয়াজুল ও রকি জানান, তার চাচা ২২ বছর ধরে সৌদিতে রয়েছেন। সেখানে তার একটি গ্রীলের দোকান আছে। এ বছরের ১৮ জানুয়ারী ওমরা হজ্ব পালন করতে চাচা সাইফুল তার স্ত্রী ও দুই সন্তানকে সৌদি আরবে নিয়ে যান। শনিবার দুপুরে মক্কা শরীফ থেকে রিয়াদে আসার পথে দুইটি মাইক্রোবাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলেই স্ত্রী শিউলী বেগম ও তার ছেলে ওমর আল সাইম নিহত হন। এ সময় আহত হন চাচা সাইফুল ও চাচাতো বোন শাম্মি আক্তার। এ দুইজনকে মুর্মু অবস্থায় রিয়াদের একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে সাইফুলের ভাতিজা রকি জানান। তিনি আরো জানান, নিহতদের লাশ বাংলাদেশে নিয়ে আসার পক্রিয়া চলছে। এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি হাসান হাফিজুর রহমান জানান, আমাদের কাছে দুর্ঘটনার কোন খবর নেই, তবে টেলিভিশনে আমরা দেখছি যে ঝিনাইদহের শেখপাড়া গ্রামের দুইজন নিহত হয়েছে।